আসামে ৩১ শে আগস্ট এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ

115

NYB ডেস্ক: চূড়ান্ত নাগরিকপঞ্জি প্রকাশে মাত্র ৬ দিন আগেও শুনানিতে ডাক পাচ্ছেন প্রচুর লোক। এখনো নোটিশ পাওয়ার খবর আসছে বিভিন্ন জেলা থেকে। তাই শেষ মুহূর্তে কিসের জন্য এত লোককে ডাকা হচ্ছে তা নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়। এমনকি বিদেশী সংখ্যা বাড়িয়ে দেখাতে ইচ্ছাকৃতভাবে চূড়ান্ত করা হচ্ছে এমন গুরুতর অভিযোগও উঠছে। কিন্তু সুপ্রিমকোর্ট যখন সরকারের আর্জি খারিজ করে রি-ভেরিফিকেশনের প্রয়োজন নেই বলে নির্দেশ দিয়েছে, তখন চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ ঠিক আগের মুহূর্তে নতুন নতুন কারণ দেখিয়ে এত লোককে শুনানিতে ডাকা হচ্ছে, এর কোন জবাব মেলেনি।

কিন্তু একেবারে শেষ মুহূর্তে এবারের একাংশ লোককে শুনানিতে ডাকায় চূড়ান্ত নাগরিক পঞ্জি থেকে প্রচুর লোকের নাম বাদ পড়ার শঙ্কায় ব্যক্ত করেছে আমসু। সংখ্যালঘু ছাত্র সংস্থার অভিযোগ, বিভিন্ন জেলায় একাংশ লোককে এখনো ডাকা হচ্ছে শুনানিতে। একদিন আগে বলা হয়েছে হাজির হতে। শুক্রবার কামরূপ জেলার বেশ কিছু লোককে নোটিশ দেওয়া হয়েছে, যাদের শনিবার শুনানিতে হাজির থাকতে হয়েছে এর কারণ কি? আমসুর মুখ্য উপদেষ্টা আজিজুর রহমানের দাবি, আমাদের সংশয় হচ্ছে নাগরিক পঞ্জি থেকে প্রচুর লোকের নাম দিতে এসব করা হচ্ছে। বিদেশি সংখ্যা বাড়িয়ে দেখানো একটা খেলা চলছে। না হলে এখন কেন শুনানিতে ডাকা হচ্ছে? ছয় দিন আগে শুনানী নিলে শুদ্ধ নাগরিকপঞ্জি প্রকাশ করা কিভাবে সম্ভব?

বকো এলাকা থেকে যেসব লোককে শুনানিতে হাজির থাকতে হয়েছে, তাদের নোটিশের রিলেশনশিপ ইনভ্যালিড বলা হয়েছে। তাই আজিজুরের অভিযোগ, পিতৃ পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক প্রমাণিত না হলে সেই ব্যক্তির নাম খসড়ায় কি করে স্থান পেল? তারপর গত ২৬ জুন অতিরিক্ত খসড়া-ছুটদের যে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে, সেই তালিকায় কেন তাদের নাম সংযোজিত হলো না? এতদূর পেরিয়ে এসে একেবারে শেষ মুহূর্তে বলা হচ্ছে ‘রিলেশনশিপ ইনভ্যালিড’। চূড়ান্ত তালিকা থেকে নাম বাদ দিতেই এইসব করা হচ্ছে যাতে বিদেশির সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। সূত্র TDN বাংলা

 

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here